ঘড়েই ত্বক উজ্জল করুন লেবু এবং নারকেল তেল দিয়ে

লেবু এবং নারকেল তেল

ত্বক পরিচর্যায় লেবু এবং নারকেল তেলের ভূমিকা কী?

  • লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ ব্যবহার করলে ত্বক আরও সুন্দর হয়ে উঠতে পারে।
  • নারকেল তেল যোগ করার পর লেবুতে থাকা এসিড কমে যায়। তাই চুল পড়ার কোন সুযোগ নেই।
  • নারকেল তেলে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ই এবং ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে, যা ত্বক উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।
  • লেবু স্বাভাবিকভাবেই ডার্ক প্যাচ, হাইপারপিগমেন্টেশন, মেলাসমা সহ অনেক সমস্যা দূর করতে উপকারী ভূমিকা পালন করে।

আমরা কেন লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ ব্যবহার করব?

প্রাকৃতিকভাবে সমৃদ্ধ পণ্যকে বলা হয় জৈব স্কিনকেয়ার। এই পণ্যগুলিতে কোনও ক্ষতিকারক এবং বিষাক্ত উপাদান থাকবে না। বেশিরভাগ মহিলাই চান তাদের ত্বক নিখুঁত এবং উজ্জ্বল হোক। কিন্তু রাসায়নিক প্রসাধনী ব্যবহার ত্বকের ক্ষতি করছে। প্রাকৃতিকভাবে লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ ব্যবহার করলে ত্বক নিরাপদে উজ্জ্বল হবে।

লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ ত্বকের বিবর্ণতা রোধ করে এবং ত্বক উজ্জ্বল করে। লেবুর পরিমাণ যেন খুব বেশি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখুন। লেবুর পরিমাণ বেশি হলে এসিডের মাত্রা বেড়ে যেতে পারে। তাই পরিমিত মাত্রায় লেবু ব্যবহার করুন।

ত্বক উজ্জ্বল করার জন্য লেবু এবং নারকেল তেল কতটুকু কার্যকর?

ত্বককে আর্দ্র, সতেজ এবং উজ্জ্বল রাখতে লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ ব্যবহার করুন। এই মিশ্রণ ত্বকে বাড়তি সুরক্ষা তৈরি করে। লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ ত্বককে কালো দাগ বা শক্ত দাগ থেকে রক্ষা করে এবং ত্বককে আরো সুন্দর করে তোলে।

কীভাবে লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ প্রস্তুত করবেন?

  • ত্বক সাদা করার জন্য দশ ফোঁটা লেবুর রস নিন।
  • ত্বক উজ্জ্বল করার জন্য দুই টেবিল চামচ নারকেল তেল নিন।
  • মিশ্রণটি তৈরি করতে একটি চামচ দিয়ে ভাল করে নাড়ুন।

কীভাবে লেবু এবং নারকেল তেলের মিশ্রণ মুখে দিতে হবে?

  • পরিষ্কার তুলা দিয়ে একটি গোল বল তৈরি করুন।
  • এখন সেই তুলার বলের সাহায্যে মিশ্রণটি ত্বকে লাগান।
  • মিশ্রণটি ত্বকে লাগানোর পর পনের মিনিট অপেক্ষা করুন।
  • উষ্ণ এবং পরিষ্কার পানি দিয়ে ত্বক ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন।
  • এই মিশ্রণটি প্রতিদিন ব্যবহার করলে ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃণ হবে।

দ্রুত ফলাফল পেতে হলুদ, মধু এবং লবণ এই মিশ্রণের সাথে ব্যবহার করা যেতে পারে। ত্বকের ধরন অনুযায়ী লবণ ব্যবহার করা উচিত।

কতক্ষণ আমি এই মিশ্রণ ব্যবহার করব?

আপনি এই প্রাকৃতিক মিশ্রণটি সারা বছর ব্যবহার করতে পারেন। এই মিশ্রণে রয়েছে ভিটামিন ই, যা ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। নারকেল তেলে চর্বি থাকে যা ত্বকের দাগ, ফুসকুড়ি এবং শুষ্ক ত্বক ঠিক করতে সাহায্য করে।

নারকেল তেলের প্রদাহবিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা ত্বকের বলিরেখা এবং চোখের নিচের কালো দাগ দূর করে। কয়েক মাস ব্যবহারের পরে, আপনি ত্বকে বেশ পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন।

ত্বক উজ্জ্বল করতে নারকেল তেল ছাড়াও লেবু ব্যবহার করতে পারেন। জনপ্রিয় উপায়গুলি নীচে বর্ণিত হয়েছে।

কিভাবে নারকেল তেল ছাড়া লেবুর মিশ্রণ তৈরি করবেন

লাইটেনিং ফ্র্যাকলেসের জন্য একটি মিশ্রণ তৈরির নিয়ম

  • এক টেবিল চামচ লেবুর রস নিন।
  • ভালো মানের গোলাপ জল দুই টেবিল চামচ নিন।
  • এক টেবিল চামচ মাটি বা ফুলের মাটি নিন।
  • এটি ত্বকে লাগান এবং দশ থেকে পনের মিনিট রেখে দিন ।
  • এখন মিশ্রণটি শুকানোর জন্য কিছুক্ষন অপেক্ষা করুন।
  • এখন হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন।

লাইটেনিং পিগমেন্টেশন জন্য প্রস্তুতি

  • এক টেবিল চামচ পরিমাণ মধু নিন।
  • ভালো মানের অলিভ অয়েল এক টেবিল চামচ নিন।
  • মিশ্রণটি প্রস্তুত হয়ে গেলে মুখে ভালো করে লাগান।
  • এখন মিশ্রণটি শুকানোর জন্য কিছুক্ষন অপেক্ষা করুন।
  • তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে নিন।

রেফারেন্সঃ

femina.in

jagonews24.com

bangla.popxo.com

এই ওয়েবসাইটে আপনি পাবেন সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় বিভিন্ন ধরনের জানা ও অজানা সকল তথ্য। যে তথ্যগুলো আপনাকে দৈনন্দিন জীবনযাত্রায় অনেক ধরনের সাহায্য করতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Previous Story

শরীরকে সুস্থ্য রাখতে সাতটি নিয়ম মেনে চলুন এবং নিজেই এর ফলাফল দেখুন

Next Story

আপনি কি গোড়ালি ফাটা সমস্যায় ভুগছেন তাহলে ঘরোয়া সমাধান জেনে নিন